Pages

24 June 2016

ফ্রিলেন্স সম্পর্কে কিছু কথা

ফ্রিলেন্স প্রফেশন হিসেবে বেছে নেবার কারন: এখানে সুযোগ রয়েছে, দেশের বাজার ছাড়িয়ে বিশ্ব বাজারে নিজের দক্ষতা যাচাই ও প্রমাণের সে সাথে অর্থ উপার্জনের অপার সম্ভাবনা।
ফ্রিলেন্স কাজ করবার জন্য শুধু ভালো কাজ জানলেই চলে না, পাশাপাশি জানতে হবে নিজের মার্কেটিং করা বা নিজের গুন-মান বিক্রয় করতে জানতে হবে। জনপ্রিয় আউটসোর্সিং প্লাটফর্ম গুলোতে সাইন আপ করলেই হলো না, সাথে সাথে অবশ্যই নিজের কাজের প্রসার বাড়াতে হবে। নিজের উল্লেখযোগ্য কাজগুলো নিয়ে একটি পোর্টফলিও বানাতে হবে এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে নিজের দক্ষতার প্রমাণ দিতে হবে।
ফ্রিল্যান্সিং মানে oDesk, Freelancer বা Elance-এর মতো আউটসের্সিং প্রাতষ্ঠান গুলোর মধ্যস্ততায় বিশ্বময় কাজের চেষ্টা করা এবং কাজ করা। ওগুলো আসলে একেকটা অস্থায়ী চাকুরীর মার্কেটপ্লেস বা জব মার্কেট।
এখানে মূলত বিড করে কাজ নিতে হয়, যেহেতু যারা এখানে কাজ করে টাকা নেয় তারা এখান ওয়ার্কার (কর্মচারী), যারা কাজ করিয়ে টাকা দেয় তারা এখানে বায়ার; তাই বায়ারের কথা মত কাজ করতেই হয়।
সবাই ফ্রিল্যান্সিং শুরু করে মূলত স্বাধীনভাবে কাজ করবার জন্যই, যখন খুশি যতক্ষণে খুশী কাজ শেষ করা যাবে, কিন্তু আউটসোসিং মার্কেটে আসলেই কোন স্বাধীনতা থাকতে পারে না, যে প্রজেক্টেই কাজ করুন না কেন, হোক Hourly বা Fixed প্রাইস; সে কাজের একটা নির্দিষ্ঠ সময় বাধা থাকবেই, ঠিকমত কাজ না দিতে পারলে বায়ারকে জবাব দিতে হবে। আবার প্রজেক্ট শেষে ফিডব্যাক (১-৫) রেটিংতো আছেই। তা খারাপ হলে পরের প্রজেক্ট কাজ পাওয়া কষ্টকর।

No comments:

Post a Comment